স্ত্রীর সামনেই সত্যরঞ্জনকে পিষে ফেলল বাসটি

Daily Nayadiganta

স্ত্রীর সামনেই সত্যরঞ্জনকে পিষে ফেলল বাসটি – ছবি : নয়া দিগন্ত


পূজার ছুটিতে বাড়ি ফেরা হলো না বিদ্যুৎ উৎপাদন কর্মী সত্যরঞ্জন দেবনাথের (৪০)। বাসের চাকায় পিষ্ট হয়ে স্ত্রীর সামনেই প্রাণ হারালেন তিনি। সত্যরঞ্জন দেবনাথ নরসিংদী জেলায় পলাশ থানার পন্ডিত পাড়া গ্রামের সুভাষ দেবনাথের ছেলে। তিনি গাজীপুর মহানগরীর আরপিসিএল-এর কড্ডা পাওয়ার প্ল্যান্টে হেলপার পদে চাকরি করতেন।

জিএমপি’র বাসন থানার এসআই কামরুল ইসলাম ও স্থানীয়রা জানান, পূজার ছুটিতে মোটরসাইকেল যোগে গ্রামের বাড়ি যাওয়ার জন্য শনিবার সকালে স্ত্রী শান্তি রাণীকে নিয়ে রওনা হন। সকাল ৭টার দিকে তিনি গাজীপুর সিটি করপোরেশন কড্ডা ট্রাক ষ্ট্যান্ড এলাকায় ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়কের পাশে দাঁড়িয়ে ছিলেন। এসময় তার স্ত্রী মোটরসাইকেলের পেছনে উঠে বসার সময় তিনি নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ফেলেন। এতে তিনি মোটরসাইকেলসহ মহাসড়কে পড়ে গেলে পেছন থেকে আসা চান্দনা চৌরাস্তাগামী একটি বাস সত্যরঞ্জনকে চাপা দিয়ে চলে যায়। এতে বাসের চাকায় পিষ্ট হয়ে সত্যরঞ্জন ঘটনাস্থলেই নিহত হন। তবে এঘটনায় তার স্ত্রী অক্ষত অবস্থায় রয়েছেন। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে নিহতের লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য শহীদ তাজউদ্দীন আমদ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠান। এ ব্যাপারে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here