আমরাও মানুষ, ভুল করি কিন্তু ছোট করা উচিত না: মাহমুদউল্লাহ

মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ – ছবি : সংগৃহীত

স্কটল্যান্ডের বিরুদ্ধে হারের পর খোদ বিসিবি সভাপতি ক্রিকেটারদের কাঠগড়ায় দাঁড় করিয়েছিলেন। সমালোচনা হয়েছিল মাহমুদউল্লাহর ক্যাপ্টেন্সি নিয়েও। সমালোচনা ঝেড়ে ফেলে ওমানের বিরুদ্ধে জয় পেয়েছে বাংলাদেশ।

বৃহস্পতিবার পাপুয়া নিউ গিনিকে উড়িয়ে বিশ্বকাপের চূড়ান্ত পর্বেই নাম লিখিয়েছে টাইগাররা।

ম্যাচের পর বাংলাদেশ অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ তার প্রতিক্রিয়ায় বলেন, ‘আমরাও মানুষ, ভুল করি কিন্তু ছোট করা উচিত না।’

তিনি আরও বলেন, ‘সমালোচনা আমাদের স্পর্শ করে। আমরাও মানুষ। আমাদের পরিবার আছে। আমাদের বাবা-মা’রাও বসে থাকে টিভির সামনে। আমাদের বাচ্চারাও খেলা দেখে। তারাও মন খারাপ করে। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম তো এখন মানুষের হাতের নাগালে। সবার মোবাইল আছে। সমালোচনা তো হবেই। আমরাও আশা করি সমালোচনা হোক। আমরা খারাপ খেলেছি সমালোচনা হবেই। কিন্তু সমালোচনার মাধ্যমে কেউ কাউকে ছোট করে ফেলে সেটা কিন্তু খারাপ লাগে।’

মাহমুদউল্লাহ বলেন, ‘অনেক প্রশ্ন এসেছে। আমাদের ব্যাটিংয়ের স্ট্রাইক রেট। আমাদের তিন সিনিয়র ক্রিকেটারের স্ট্রাইক রেট নিয়ে। আমরা তো চেষ্টা করেছি। চেষ্টার বাইরে তো আমাদের কাছে কিছু নেই। এরকম না যে আমরা চেষ্টা করিনি। আপ্রাণ চেষ্টা করেছি। কিন্তু ফল আমাদের পক্ষে আনতে পারিনি।’

টাইগার ক্যাপ্টেন বলেন, ‘সমালোচনা হবেই। এটা কাম্য। কিন্তু সুস্থ সমালোচনা হলে সবার জন্য ভালো। আমরাও অনুভব করি। বাংলাদেশের জার্সিটা যখন আমরা গায়ে দেই তখন আমাদেরও সম্মান অনুভব হয়। আমরা দেশের জন্য কতটুকু করি। সবারই ত্যাগ থাকে। কারো ব্যথা থাকে। কারো অনেক ইনজুরি থাকে। ওগুলো নিয়ে আমরা খেলি। দিনের পর দিন আমরা খেলি। পেছনের গল্পগুলো অনেকেই জানে না। এজন্য কমিটমেন্ট নিয়ে প্রশ্ন করা ঠিক না।’

ম্যাচে জয় লাভ করায় মাহমুদউল্লাহ বলেন, ‘আশা করি, এখন কিছুটা স্বস্তি পাবো। এজন্য খেলোয়াড় এবং প্রত্যেক টিম ম্যানেজমেন্টকে কৃতিত্ব দেওয়া উচিত।’

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here