ব্যালটে জোর করে সিল: কেন্দ্রে ভোট স্থগিত

বরিশাল সিটি নির্বাচন

ব্যালটে জোর করে সিল: কেন্দ্রে ভোট স্থগিত

সামছুর রহমান, বরিশাল থেকে
৩০ জুলাই ২০১৮

বরিশাল মহানগর পশ্চিম কাউনিয়া এলাকার সৈয়দা মজিদুন্নেছা মাধ্যমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রের (পুরুষ) ভোট বাতিল করা হয়েছে। কেন্দ্র দখল, জোরপূর্বক ব্যালট ছিনতাই করে সিল মারার অভিযোগে দুপুর ১২টার দিকে কেন্দ্রের ভোট কার্যক্রম স্থগিত করেন প্রিসাইডিং কর্মকর্তা সঞ্জয় কুমার। একই সঙ্গে গৃহীত ভোটও বাতিল করেন।

এই কেন্দ্রের নম্বর ৪। মোট ভোটার ২৪ শ ৭ জন। বুথ ছিল সাতটি। এই কেন্দ্রে ভোট দিয়েছেন বিএনপির মেয়র প্রার্থী মজিবর রহমান সরওয়ার।

সিটির আওয়ামী লীগের মেয়র প্রার্থীর লোকজন কেন্দ্রটি দখল করে নেয়। কেন্দ্রের বাইরে অপেক্ষমাণ ভোটারদের দীর্ঘ সারি থাকলেও তারা ভেতর ঢুকতে পারছিলেন না। ভেতরে শতাধিক ব্যক্তি মেয়র পদের ব্যালটে আওয়ামী লীগ প্রার্থীর পক্ষে গণহারে সিল মারে। এই স্কুলে দুটি কেন্দ্র (নারী ও পুরুষ)। নারী কেন্দ্রেও রয়েছে সাতটি বুথ।

বেলা ১১টার দিকে পুরুষ কেন্দ্রের চার নম্বর বুথে (পুরুষ) গিয়ে দেখা যায় টেবিলের ওপর মেয়র পদের ব্যালট বইয়ের মুড়িটি ভাঁজ করা অবস্থায় পড়ে আছে। প্রতিটি ব্যালটে নৌকা প্রতীকের ওপর সিল মারা। ওই বুথের দায়িত্বে থাকা সহকারী প্রিসাইডিং কর্মকর্তা তৌহিদা খানম বলেন, একদল লোক এসে জোর করে এই ব্যালট বইয়ে সিল মেরে গেছে। সঙ্গে সিল-প্যাডও নিয়ে গেছে।

 

টেবিলের ওপর পড়ে আছে মেয়র পদের ব্যালট বই। বইয়ের সব ব্যালটে নৌকা প্রতীকের ওপর সিল মারা। ছবি: সামছুর রহমান

এই কেন্দ্রের তিন নম্বর বুথেও দীর্ঘক্ষণ ধরে ভোট নেওয়া বন্ধ করে রাখা হয়। ওই বুথের সহকারী প্রিসাইডিং কর্মকর্তা আলতাফ হোসেন বলেন, মেয়রের ব্যালটের পুরো মুড়িটাই এক দল লোক ছিনিয়ে নিয়ে গেছে। তাই ভোট গ্রহণ বন্ধ রাখা হয়েছে।

এই কেন্দ্রে দুই কাউন্সিলর প্রার্থীর সমর্থকদের মধ্যে একাধিকবার পাল্টাপাল্টি ধাওয়া হয়। পরে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটের নেতৃত্বে অতিরিক্ত পুলিশ ও বিজিবি সদস্য পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনার চেষ্টা করে। একপর্যায়ে কেন্দ্রের সামনের রাস্তায় দুই কাউন্সিলর প্রার্থীর লোকজন দুই পাশে অবস্থান নেয়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here