ভোটারদের দেখা নেই, অলস সময় কেটেছে নির্বাচন কর্মকর্তাদের

The Daily Star Bangla ফেব্রুয়ারী ২৮, ২০১৯

ভোটারদের দেখা নেই, অলস সময় কেটেছে নির্বাচন কর্মকর্তাদের

স্টার অনলাইন রিপোর্ট

থেমে থেমে চলা বৃষ্টির মাঝে আজ ঢাকার দুই সিটি করপোরেশনে নতুন গঠন করা ওয়ার্ডে ও উত্তর সিটিতে মেয়র পদে উপনির্বাচনে ভোটগ্রহণ শুরু হলেও সকাল থেকে বিভিন্ন ভোটকেন্দ্র ঘুরে ভোটার উপস্থিতি খুব কম দেখা গেছে। ভোটার কম থাকায় অলস সময় কেটেছে কর্মকর্তাদের

উত্তরার আজমপুরের নবাব হাবিবুল্লাহ মডেল স্কুল অ্যান্ড কলেজ কেন্দ্রে মেয়র পদে আওয়ামী লীগের প্রার্থী আতিকুল ইসলাম ভোট দিয়েছেন সকাল ৯টার দিকে। ভোটার উপস্থিতি কম দেখে ‘গরম চা আর খিচুড়ি খেয়ে’ কেন্দ্রে গিয়ে ভোট দেওয়ার অনুরোধ করেছেন তিনি।

রাজধানীর মহাখালী মডেল হাই স্কুল কেন্দ্রে সকাল ৯টা ৪০ মিনিটে গিয়ে দেখা যায় ভোটার না থাকায় প্রিজাইডিং অফিসার হুমায়ুন কবিরসহ ভোটগ্রহণের দায়িত্বে থাকা অন্যরা সবাই অলস সময় কাটাচ্ছেন। কেউ কেউ চা-নাস্তা খেয়ে সময় পার করছেন। কাজ না থাকায় ঝিমুতেও দেখা যায় কয়েকজনকে। ২২১৪ জন ভোটারের এই কেন্দ্রটিতে আধা ঘণ্টা অপেক্ষা করে একজন ভোটারেরও দেখা পায়নি দ্য ডেইলি স্টারের প্রতিবেদক।

তেজগাঁও মডেল হাই স্কুল কেন্দ্রে এভাবেই ঘুমাতে দেখা যায় এক নারী আনসার সদস্যকে। ছবি: রাফিউল ইসলাম

সকাল সাড়ে ১০টার দিকে টি এন্ড টি আদর্শ গার্লস হাই স্কুল কেন্দ্রে গিয়ে প্রায় একই চিত্র দেখেছেন এই প্রতিবেদক। সেখানে ভোটগ্রহণের দায়িত্বে থাকা প্রিজাইডিং অফিসার মিজানুর রহমান আড়াই ঘণ্টায় কয়টি ভোট পড়েছে সে সম্পর্কেও কিছু জানাতে পারেননি।

এই কেন্দ্রটির একটি বুথে ৫৫০ জন ভোটার রয়েছেন। বুথটির দায়িত্বে থাকা সহকারী প্রিজাইডিং অফিসার আফজাল রহমান দ্য ডেইলি স্টারকে বলেন, আড়াই ঘণ্টায় মাত্র একজন ভোটার এসেছিলেন তার কাছে।

রাজধানীর মোহাম্মদপুরে সরকারি শারীরিক শিক্ষা কলেজ কেন্দ্রে ১০টা ৫২ মিনিটে গিয়ে দেখা যায় প্রায় তিন ঘণ্টা পেরিয়ে গেলেও কেন্দ্রের তিনটি বুথে একটিও ভোট পড়েনি।

বিএনপি ভোট বর্জন করায় শুরু থেকেই এই নির্বাচনে উত্তাপহীন। আজ ভোর থেকে থেমে থেমে বৃষ্টি থাকায় সকালে ভোটার কম থাকবে সেটা প্রত্যাশিতই ছিল। কিন্তু ৯টার পর সূর্যের দেখা মিললেও ভোটারের উপস্থিতি কাঙ্ক্ষিতভাবে বাড়েনি।

মোহাম্মদপুর সরকারি কলেজ কেন্দ্রে সকাল ১০টা ৫২ মিনিট পর্যন্ত তিনটি বুথে একটিও ভোট পড়েনি। ছবি: রাশিদুল হাসান

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here