ভারত বাধা উতরাতে পারবে যুবারা?

ভারত বাধা উতরাতে পারবে যুবারা? – ছবি : নয়া দিগন্ত

অনূর্ধ্ব-১৯ ক্রিকেট বিশ্বকাপের কোয়ার্টার ফাইনালে আগামীকাল শনিবার মাঠে নামবে বাংলাদেশের যুবারা। প্রতিপক্ষ ভারত। ওয়েস্ট ইন্ডিজের কুলিজ ক্রিকেট গ্রাউন্ডে ম্যাচটি শুরু হবে বাংলাদেশ সময় সন্ধ্যা ৭টায়।

অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপে বর্তমান চ্যাম্পিয়ন বাংলাদেশ। গত আসরে এই ভারতকে হারিয়ে প্রথমবারের মতো কোনো বৈশ্বিক টুর্নামেন্টের শিরোপা জিতেছিল বাংলার যুবারা। এবার সেই ভারত কোয়ার্টার ফাইনালে বাংলাদেশের সামনে।

ভারতকে হারানো কঠিন কাজ, তবে অসম্ভব না। গ্রুপ পর্বে বাংলাদেশ দুটি ম্যাচ জিতেছে। হেরেছে একটিতে। এই এক হার অনেক প্রশ্নের জন্ম দিয়েছে। বিশেষ করে যুবাদের সামর্থ্য নিয়ে। প্রথম ম্যাচে বাংলাদেশের প্রতিপক্ষ ছিল ইংল্যান্ড। ডিফেন্ডিং চ্যাম্পিয়ন হিসেবে ইংলিশ যুবাদের সামনে পাত্তাই পায়নি বাংলাদেশ। মাত্র ৯৭ রানে অলআউট হন রাকিবুলরা। জবাবে ইংল্যান্ড জিতেছিল ৭ উইকেটে।

পরের দুটি ম্যাচে বাংলাদেশের প্রতিপক্ষ ছিল তুলনামূলক দুর্বল। কানাডার সাথে বাংলাদেশ জেতে ৮ উইকেটে। আরব আমিরাতকে হারায় ৯ উইকেটে। এ দুই ম্যাচে জয়ের কারণে কোয়ার্টার ফাইনালে জায়গা করে নেয় বাংলাদেশ। বিশ্বকাপে এখন পর্যন্ত বাংলাদেশ শক্ত দল হিসেবে শুধু পেয়েছে ইংল্যান্ডকে। যেখানে যুবাদের পারফরম্যান্স ছিল বাজে। এবার কোয়ার্টার ফাইনালে শক্তিশালী ভারতের বিরুদ্ধে কেমন করবেন যুবারা, তা সময়ই বলে দেবে।

সেই তুলনায় ভারত বেশ ফর্মের তুঙ্গে আছে। গ্রুপ পর্বের তিন ম্যাচেই তারা পেয়েছে জয়। প্রথম ম্যাচে দক্ষিণ আফ্রিকাকে তারা হারায় ৪৫ রানে। দ্বিতীয় ম্যাচে আইরিশদের তো রীতিমতো উড়িয়ে দেয় ভারত। জয় পায় ১৭৪ রানে। শেষ ম্যাচটি ছিল উগান্ডার বিরুদ্ধে। যেখানে ভারত জেতে ৩২৬ রানের ব্যবধানে।

ভারত যতই ফর্মে থাকুক, ছেড়ে কথা বলবে না বাংলাদেশও। ম্যাচের আগের দিন তেমন প্রত্যয় দেখা গেল বাংলাদেশ অধিনায়ক রাকিবুলের কণ্ঠে। শুক্রবার এক ভিডিও বার্তায় টাইগার অধিনায়ক বলেন, ‘আমরা ওদের (ভারত) সাথে ভয়ডরহীন ও ইতিবাচক ক্রিকেট খেলব। যাতে আমরা ভালো একটা ফল নিয়ে বের হতে পারি। ওদের সাথে আমাদের আগেও খেলা হয়েছে কিছু ম্যাচ। এশিয়া কাপের সেমিফাইনাল ও তার আগে একটা সিরিজ খেলেছি ভারতে গিয়ে। তাই তাদের শক্তিমত্তা, দুর্বলতা সম্পর্কে আমাদের জানা আছে।’

তিনি আরো বলেন, ‘যে পরিকল্পনা করে আমরা যাব সেটা যদি প্রয়োগ করতে পারি এবং ছোট ছোট ভুলগুলো যদি আমরা কম করি তাহলে দিনশেষে আমরা ভালো একটা ফল নিয়ে বের হতে পারব। আমরা ফলাফলের চিন্তা করছি না, আমরা ভালো ক্রিকেট খেলার চেষ্টা করব, ভয়ডরহীন ও ইতিবাচক ক্রিকেট খেলব।’

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here