U.S. Department of State disappointed by the Government of Bangladesh’s inability to grant credentials and issue visas within the timeframe necessary to conduct a credible international monitoring mission

U.S. Department of State

Upcoming Election in Bangladesh

Press Statement

Robert Palladino
Deputy Spokesperson
Washington, DC
December 21, 2018

The United States is disappointed by the Government of Bangladesh’s inability to grant credentials and issue visas within the timeframe necessary to conduct a credible international monitoring mission to the majority of international election monitors from the Asian Network for Free Elections (ANFREL), which the United States funded through the National Democratic Institute. As a result, ANFREL was forced to cancel its observation mission for the December 30 national election. The lack of an international observation mission makes it even more important for the Government of Bangladesh to complete the accreditation of all the local NGOs that constitute the Election Working Group, which includes some funded by USAID, so they can conduct the vital work of monitoring the election.

In the lead up to any democratic election there must be space for peaceful expression and assembly; for independent media to do its job covering electoral developments; for participants to have access to information; and for all individuals to be able to partake in the electoral process without harassment, intimidation, or violence. We encourage the Government of Bangladesh to uphold its commitment to a democratic process by ensuring all Bangladeshis are free to peacefully express themselves and participate in December 30 election.

বাংলাদেশের আসন্ন নির্বাচন

 

ডিপার্টমেন্ট অফ স্টেট, যুক্তরাষ্ট্র
ডেপুটি মুখপাত্র রবার্ট প্যালাদিনোর বিবৃতি
ডিসেম্বর ২১, ২০১৮

এশিয়ান নেটওয়ার্ক ফর ফ্রি ইলেকশনস (আনফ্রেল/এএনএফআরইএল)এর অধিকাংশ আন্তর্জাতিক নির্বাচন পর্যবেক্ষককে বাংলাদেশ সরকার একটি বিশ্বাসযোগ্য আন্তর্জাতিক পর্যবেক্ষণ মিশন চালানোর মতো যথাযথ সময়ের মধ্যে পরিচয়পত্র ও ভিসা দিতে না পারায় যুক্তরাষ্ট্র হতাশ।

যুক্তরাষ্ট্র সরকার ন্যাশনাল ডেমোক্রেটিক ইনস্টিটিউটের মাধ্যমে ঐ মিশনে অর্থায়ন করেছিল। যথাসময়ে পরিচয়পত্র ও ভিসা না পেয়ে আনফ্রেল/এএনএফআরইএল তাদের ৩০ ডিসেম্বরের নির্বাচন পর্যবেক্ষণ মিশন বাতিল করতে বাধ্য হয়েছে। আন্তর্জাতিক পর্যবেক্ষণ মিশন না থাকায় নির্বাচন পর্যবেক্ষণের গুরুত্বপূর্ণ কাজটি করতে ইলেকশন ওয়ার্কিং গ্রুপের সদস্য স্থানীয় এনজিওগুলোর জন্য পরিচয়পত্রসহ আনুষ্ঠানিকতা সম্পন্ন করার বিষয়টি বাংলাদেশ সরকারের জন্য এখন আরও গুরুত্বপূর্ণ। প্রসঙ্গত, ইলেকশন ওয়ার্কিং গ্রুপের সদস্যদের মধ্যে ইউএসএআইডির অর্থায়নপুষ্ট প্রতিষ্ঠান রয়েছে।

যে কোন গণতান্ত্রিক নির্বাচনের প্রাক্কালে শান্তিপূর্ণ মত প্রকাশ ও সমাবেশ অনুষ্ঠান,নির্বাচনী ঘটনাপ্রবাহের খবর সংগ্রহ ও প্রচার করতে প্রচারমাধ্যমের স্বাধীনতা, অংশগ্রহণকারীদের জন্য তথ্যপ্রাপ্তির সুযোগ এবং সব নাগরিকের জন্য হয়রানি, ভয়ভীতি ও সহিংসতা ছাড়া নির্বাচনী প্রক্রিয়ায় অংশগ্রহণের নিশ্চয়তা থাকা উচিত। বাংলাদেশের সবাই যেন ৩০ ডিসেম্বরের নির্বাচনে শান্তিপূর্ণভাবে অংশ নিয়ে নিজেদের মত প্রকাশ করতে পারে তা নিশ্চিত করার মাধ্যমে গণতান্ত্রিক প্রক্রিয়ার প্রতি অঙ্গীকার সমুন্নত রাখতে আমরা বাংলাদেশ সরকারের প্রতি আহ্বান জানাচ্ছি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here