ভারতকে ভেঙ্গে স্বাধীনভূমি ‘নাগালিম’ গঠন করতে পৃথক পতাকা ও সংবিধানের দাবি করেছে এনএসসিএন

ভারতকে ভেঙ্গে স্বাধীনভূমি ‘নাগালিম’ গঠন করতে চায় এনএসসিএন-আইএম, ইতোমধ্যে আবারো তারা পৃথক পতাকা ও সংবিধানের দৃঢ় দাবি করেছে, যার ফলে চিন্তায় পরেছে মোদি সরকার!

১৯৬৪ সালে যখন নাগাল্যান্ড গঠিত হয় তখন থেকেই বিচ্ছিন্নবাদীরা নাগাল্যান্ড, মণিপুর, অরুণাচল, প্রদেশ, মিজোরাম, অসমের বিস্তীর্ণ অঞ্চল নিয়ে ‘নাগালিম’ গঠন করতে চেয়েছিল। পরবর্তীতে তারা আরো দাবী করেছিল, নাগাদের জন্য স্বায়ত্তশাসনের ব্যবস্থা করা হোক। যার মধ্যে প্রধান ছিল, স্বাধীন নাগা রাষ্ট্রের নাগরিকের পরিচয়ের ব্যবস্থা করা। তাদের জন্য পৃথক একটি ‘প্ল্যানিং কমিশন’ গঠন করা।

নাগা রাজ্যের জন্য পৃথক পতাকা এবং রাজ্য মানব অধিকার কমিশন গঠন করতে হবে। এবং সেই পতাকা ব্যবহার করে ব্যবসা ও পর্যটন বৃদ্ধির জন্য পৃথক কেন্দ্র খুলতে হবে। পাশাপাশি তাদের শুল্ক আইনের পরিবর্তন করতে হবে। নাগা-পরিষদ এবং মন্ত্রীদের নৃতাত্ত্বিক নামকরন এবং পৃথক প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা করতে হবে।

বিচ্ছিন্নতাবাদীদের তোপের মুখে পরে ২০১৫ সালে ভারত সরকার শান্তি চুক্তি করতে বাধ্য হয়েছিল তাদের সাথে। ‘ন্যাশনাল সোশ্যালিস্ট কাউন্সিল অব নাগাল্যান্ড’-এনএসসিএন-আইএম এর নেতা থুইঙ্গালাং মুইভার গত শুক্রবার এক বৈঠকে বলেছেন, ২০১৫ সালে শান্তি চুক্তির পর থেকে আমরা অস্ত্রবিরতি পালন করে আসছি। পাচ বছর আগে কেন্দ্রীয় সরকার আমাদের পৃথক জাতীয় পতাকা ও সংবিধানের প্রতিশ্রুতি দিয়েছিল। কিন্তু সেই প্রতিশ্রুতি এখনও তারা পালন করেনি।

তাই যতদিন পর্যন্ত না পতাকা ও সংবিধানের দাবি পূরণ হয়, ততদিন তারা কেন্দ্রীয় সরকারের সঙ্গে আর আলোচনায় রাজি হবে না বলে সাফ জানিয়েছে।

একদিকে চীনের সঙ্গে ভারতের সীমান্ত সংঘাত চলমান রয়েছে, তারপর নেপাল ও পাকিস্তান ভারতীয় ভূখণ্ডের বেশ কিছু জায়গা তাদের মানচিত্রে যুক্ত করেছে। এরই মধ্যে বিচ্ছিন্নতাবাদী সশস্ত্র গোষ্ঠী এনএসসিএন-আইএমের পৃথক পতাকা ও সংবিধানের দাবিতে কঠোর অবস্থান কেন্দ্রীয় সরকারের জন্য নয়া বিড়ম্বনার কারণ হয়ে দাড়িয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here